মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলার ঘটনায় এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

muktijjsodhan

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউএস বিডি টাইমস :মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও এর সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল। দাবি মানা না হলে রাজপথে আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি। বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিবাদ জানায় সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তারা জানান, গত ২৬ জুন ঈদের দিন সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন মোল্লাকে হত্যার উদ্দেশে হামলা চালায়। ঢাকা মহানগর ইউনিট কমান্ডসহ ৪৯টি থানা কমান্ডের পক্ষ থেকে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন- সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিয়াউর রহমান। এছাড়া এতে উপস্থিত ছিলেন- আবু শহীদ বিল্লাহ, শেখ শাহ জালাল, আবুল হাশেমসহ বীর মুক্তিযোদ্ধারা। বক্তারা বলেন, এ দেশ স্বাধীন করেছিলাম যুদ্ধ করে, তার প্রতিদানে এমন ন্যাক্কারজনক হবে তা আমরা কোনদিনই ভাবিনি। আবার তাও যদি ঘটে কোনো সংসদ সদস্যের কাছ থেকে। যারা জনমানুষের নেতা। তারা যদি এ কাজ করে তাহলে জনগণ কি করবে? আর তাদের কাছ থেকে তরুণ প্রজন্ম কি শিখবে। রাজনীতির আড়ালে নোংরা কাজে লিপ্ত এ নেতাদের দ্বারা দেশের জন্য কোনো ভালো কাজ হতে পারে তা আমরা এখন কল্পনাও করতে পারি না। বক্তারা আরও বলেন, ঈদুল ফিতরের দিন সকাল ১০টার দিকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আমির হোসেন মোল্লার বাড়ির সামনের রাস্তার উপর ঢাকা-১৬ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দীন মোল্লার পরিচালিত সন্ত্রাসী বাহীনি জুয়ার আসর বসায় ও বিকট শব্দে গান বাজিয়ে পরিবেশ নষ্ট করতে মত্ত থাকে। এ সময় তাকে বাধা দিলে তারা আমির হোসেনের বাড়িতে হামলা চালায় ও ভাঙচুর করে। এছাড়া তারা এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যার হুমকি দেয়। তারা পরিবারের সদস্যদের কুপিয়ে জখম করে বাসার আলমারি থেকে ৫ ভরি স্বর্ণ ও ২ লাখ টাকা লুটপাট করে। ঘটনার সময় আমির হোসেন মোল্লা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য গণভবনে ছিলেন এবং খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। এ সময় আমির হোসেন মোল্লার বোন মাহেলা বেগম এমপিকে বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর কর‍া হয় বলেও জানান তারা।এ বিষয়ের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবিতে কমান্ডারের ছোট বোন মহেলা বাদী হয়ে গত ৭ জুলাই আদালতে মামলা দায়ের করেন।

ইউএস বিডি টাইমস /রহমান

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>