প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনী ও জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ও বই উৎসব উদ্বোধন

rost ke ranna

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউএস বিডি টাইমস :

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। সেই সাথে ২০১৮ সালের বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়েছে।

শনিবার সকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফলাফল ঘোষণা ও বই উৎসবের উদ্বোধন করেন। প্রাথমিকের পাশের হার ৯৫.১৮ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৬২৬০৯ জন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। পরে সচিবালয়ে বেলা একটায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী এবং বেলা দুইটায় শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত ফল প্রকাশ করবেন।

গত ১ নভেম্বর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। শেষ হয় ১৮ নভেম্বর। এই দুই পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল প্রায় ২৪ লাখ ৬৯ হাজার। অন্যদিকে ১৯ থেকে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রায় ৩১ লাখ পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা ১৯ নভেম্বর
প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা ১৯ নভেম্বর শুরু হয় । বেলা ১১টায় উভয় স্তরে ইংরেজি বিষয়ের মাধ্যমে ছোটদের এ বড় পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষাকেন্দ্রিক সার্বিক প্রস্তুতি এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) মহাপরিচালক ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল।

তিনি বলেন, পরীক্ষা সুষ্ঠু, দেখাদেখি ও দুর্নীতিমুক্ত করতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এরমধ্যে আছে, পরীক্ষার হলে কোনো শিক্ষক মোবাইল ফোন নিয়ে যেতে পারবেন না।

এক উপজেলার উত্তরপত্র জেলার মাধ্যমে আরেক উপজেলায় বণ্টন করা হবে। এবার প্রথমবারের মতো টেবুলেশন কার্যক্রমও যেই উপজেলা খাতা দেখবে সেখানে করার নিয়ম জারি করা হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, পরীক্ষা সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এবার পরীক্ষায় ৩০ লাখ ৯৬ হাজার ৭৬ ছাত্রছাত্রী অংশ নিচ্ছে। এদের মধ্যে প্রাথমিকে পরীক্ষার্থী ২৮ লাখ ৪ হাজার ৫০৯ ও ইবতেদায়িতে ২ লাখ ৯১ হাজার ৫৬৬ জন। উভয় পরীক্ষায় গত বছরের তুলনায় এবার ১ লাখ ৩৬ হাজার পরীক্ষার্থী কমেছে।

প্রাথমিকে মোট পরীক্ষার্থীর ১২ লাখ ৯৯ হাজার ৯৮৫ জন ছাত্র এবং ১৫ লাখ ৪ হাজার ৫২৪ জন ছাত্রী। গত বছরের তুলনায় ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৪ জন শিক্ষার্থী কমে গেছে। অপরদিকে ইবতেদায়িতে ছাত্র ১ লাখ ৫৩ হাজার ১৫২ ও ছাত্রী ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১৪ জন।

ইবতেদায়িতে কমেছে ৮ হাজার ১৪৯ জন। সারা দেশে মোট ৭ হাজার ২৭৯ কেন্দ্রে একযোগে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া দেশের বাইরে ১২টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ইউএস বিডি টাইমস /রহমান

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>