টস জিতে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউএস বিডি টাইমস :

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই টেস্টের সিরিজে দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করছে শ্রীলঙ্কা।

বৃহস্পতিবার সকালে এই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মোট ১৯ টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে জিতেছে ২ টি, ড্র ২টি আর হার ১৫টি। টেস্টে দুই দলের সর্বশেষ লড়াইয়ে ড্র হয়। তবে তার আগে শ্রীলঙ্কার মাটিতে। নিজেদের শততম টেস্টে টাইগাররা জয় তুলে নিয়েছিল লঙ্কার মাটিতে।

তবে বাংলাদেশ দলের কোচ ছিলেন তখন চন্দিকা হাথুরুসিংহে। এবার সেই হাথুরুসিংহে নিজ দেশ শ্রীলঙ্কার কোচ। দ্বৈরথটা তাই অন্যরকম বার্তা দিচ্ছে। যদিও বাংলাদেশকে মাঠে নামতে হচ্ছে সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসানকে ছাড়া।

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হাতের আঙ্গুলে চোট পেয়ে প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে পড়েন তিন ফরম্যাটেই বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। টেস্টে ক’দিন আগেই নেতৃত্ব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু নেতৃত্ব পাওয়ার পর নিজ দেশের প্রথম টেস্টটাই মিস করছেন তিনি। প্রথম টেস্টে তার বদলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ওয়ানডেতে বাংলাদেশ বেশ জনপ্রিয় দলে পরিণত হয়েছে অনেকদিন। তবে টেস্টেও ইদানিং সবার শ্রদ্ধা আদায় করে নিতে শুরু করেছে। শেষ দুই বছরে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে ঘরের মাঠে হারিয়েছে বাংলাদেশ। সেই ধারাবাহিকতা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দেখতে চায় টাইগারদের দর্শকরা।

দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ফিরেছেন বাঁহাতি স্পিনার আবদুর রাজ্জাক। ২০১৪ সালে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচটি খেলেছিলেন তিনি। এ ছাড়া বাংলাদেশের প্রথম একাদশে ফিরেছেন সাব্বির রহমান।

বাংলাদেশ দল : তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, আবদুর রাজ্জাক, তাইজুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা দল : দিমুথ করুনারত্নে, কুশল মেন্ডিস, ধনঞ্জয় ডি সিলভা, রোশান সিলভা, দিনেশ চান্দিমাল, নিরোশান ডিকওয়েলা, ধনুস্কা গুনাথিলাকা, দিলরুয়ান পেরেরা, আকিলা ধনঞ্জয়, রঙ্গনা হেরাথ ও সুরঙ্গা লাকমল।

ছেলের বাবা হলেন মুশফিকুর রহিম
বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিয়ান মুশফিকুর রহীম ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন।

আজ সোমবার মুশফিকুর রহিমের বাবা মাহবুব হামিদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি নিশ্চিত করে একটি স্ট্যাটাস দেন।

মুশফিকের বাবা তার স্ট্যাটাসে লেখেন, আলহামদুলিল্লাহ! অবশেষে বহু কাঙ্ক্ষিত সেই দাদা ভাই, সকাল ৯টা ২৮ মিনিটে এই দুনিয়ার আলোয় চলে এলেন। শুকরিয়া গো খোদা তোমার প্রতি। দোয়ার জন্য সকলের কাছে দরখাস্ত। মা ও ছেলে দু’জনেই সুস্থ আছে। আল্লাহ যেন দাদা ভাইকে ভাল মানুষ করেন, আমিন।

এর আগে বিসিবি’র একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, স্ত্রী সন্তানসম্ভবা হওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ছুটি চেয়ে আবেদন করেছিলেন মুশফিক। কিন্তু একই সময় ইনজুরিতে পড়েন সাকিব আল হাসান। গুরুত্বপূর্ণ এক খেলোয়াড়কে হারানোয় মুশফিকের ছুটি মঞ্জুর করা হয়নি।

তবে সৌভাগ্যক্রমে সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার সময়টা দুই টেস্টের মাঝামাঝি হওয়ায় স্ত্রীর পাশে থাকার সুযোগ পেয়ে গেছেন মুশফিক। গতকাল (৪ ফেব্রুয়ারি) শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট শেষ করার পরই ঢাকার উদ্দেশ্যে বিমান ধরেছেন মুশফিকুর রহিম।

চট্টগ্রাম টেস্টের আলোচিত পাঁচটি দিক
ঢাকা: বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টটি ড্র হয়েছে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেটে ৩০৭ রান তোলে বাংলাদেশ।

মুমিনুল হক প্রথম বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান হিসেবে এক টেস্টের দুই ইনিংসেই শতক হাঁকান। লিটন দাস খেলেন ৯৪ রানের ইনিংস।

প্রথম ইনিংসে ১৭৬ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৫ রান তোলেন মুমিনুল। খবর বিবিসির

এই টেস্টে বাংলাদেশের প্রাপ্তি বা অপ্রাপ্তি কী ছিল?

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক শফিকুল হক হীরার মতে, মূল প্রাপ্তি হল মুমিনুল হকের ফর্মে ফেরা। বর্তমান প্রেক্ষাপটে মুমিনুল হক বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানদেরই একজন। তিনি যেভাবে ফর্মে ফিরেছেন সেটা দারুণ। মুমিনুলের টেকনিক ও দক্ষতা নিয়ে যে প্রশ্ন উঠেছিল সেটার জবাব দিয়েছেন বলেই মনে করেন মি: হীরা।

মুমিনুল হক বাংলাদেশের দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ২০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯৬ বলে করা শতকটি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্বিতীয় দ্রুততম টেস্ট শতক। এর আগে তামিম ইকবাল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৯৪ বলে শতক হাঁকান।

শফিকুল হক হীরা বলেন, ‘বাংলাদেশের মিডল অর্ডার ক্লিক করার বেশ প্রয়োজন ছিল। সময়মতই ভালো করেছে। টেস্টের একটা পর্যায়ে মনেই হচ্ছিল এই ৭১৩ রানের পর বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না কিন্তু শেষমেশ বেশ সন্তোষজনক একটা ড্র হয়েছে।’

লিটন দাস প্রথম ইনিংসে কোনও রান না করে আউট হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ৯৪ রান করেন। শফিকুল হক হীরার মতে, লিটন দাস আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভুগছিলেন। এমন একটা ম্যাচ বাঁচানো ইনিংস নি:সন্দেহে তাকে প্রেরণা দেবে। মুমিনুল-লিটনের জুটিটাই ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট।

বাংলাদেশ এই টেস্টে ৩ জন বিশেষজ্ঞ স্পিনার ও ১ জন পেস বোলার নিয়ে খেলতে নামে।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক শফিকুল হক হীরার মতে, দুই দলের বোলিংয়ের শক্তিমত্তার পার্থক্য খুব বেশি নয়। শুধু শ্রীলংকায় একজন লেগ স্পিনার আছে। তবে বাংলাদেশের বোলারদের এমন ডেড উইকেটে আরও লাইন লেন্থে মনোযোগী হতে হবে। এখানে আদায় করে নেয়ার খেলা।

তিনি মূলত বাংলাদেশের ঘাটতি দেখেছেন ফিল্ডিংয়ে।

মি: হীরা বলেন, ‘এমন কিছু ক্যাচ মিস হয়েছে সেগুলো ধরলে ম্যাচের ফল অন্যরকম হতেই পারতো। বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞ একজন স্লিপ ফিল্ডার প্রয়োজন। টেস্ট ম্যাচে স্লিপ জায়গাটা বিশেষ গুরুত্ব বহন করে।’

পাঁচ দিনের এই টেস্ট ম্যাচে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা মোট ১৫৩৩ রান তোলে, দুদলের উইকেট পড়েছে ২৪ টি। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট কেবল ব্যাটসম্যানদেরই সহায়ক ছিল।

বলে মনে করেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

হীরা বলেন, ‘উইকেট আরও স্পোর্টিং হওয়া উচিৎ। এমন রান-বন্যার ম্যাচে বোলারদের ভূমিকা কমই থাকে। এখানে পাঁচদিন কেন, সাতদিনও ব্যাট করা যায় অনায়াসে।’

ইউএস বিডি টাইমস /রহমান

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>